ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৫ বৈশাখ ১৪২৬
---
Tattho
প্রথম পাতা » বিবিধ » বিশ্ব রাজনীতি ও বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপট
শুক্রবার ● ২৭ এপ্রিল ২০১৮, ৫ বৈশাখ ১৪২৬
Email this News Print Friendly Version

বিশ্ব রাজনীতি ও বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপট

বিশ্ব রাজনীতি ও বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপট

_________________________________________________

---
সৈরাচার শাসকের পতন শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে হয়েছে এমন নজির পৃথীবিতে নেই।

বাংলাদেশেও হবেনা ১০০%

বিএনপির উচিৎ হবে আমেরিকা ঘেষা রাজনীতি বাদ দিয়ে চীন ও রাশিয়ার দিকে অবস্থান নেওয়া।

দক্ষিন এশিয়ায়াতে ভূরাজনীতির দিক থেকে আমেরিকার মিত্রদেশ এখন ভারত। এই অঞ্চলে চীন আমেরিকার প্রধান শত্রু, সাথে এখন পাকিস্তান।

যুগে যুগে ক্ষমতা, আধিপত্য বিস্তার ও ধর্ম কে কেন্দ্র করে শত্রু ও মিত্র পক্ষ গড়ে উঠেছে এখনও এর ব্যতিক্রম নয় ।

★★★আধিপত্য বিস্তারের জোট
_______________________________

একদিকে আমেরিকা, ন্যাটো জোট, বৃটেন, ইজরাইল, ভারত, সৌদি, জাপান, দক্ষিন কোরিয়া, অস্টেলিয়া,কানাডা…..

অন্যদিকে রাশিয়া, চীন, পাকিস্তান, উত্তর কোরিয়া, ইরান, সিরিয়া, কিউবা, ভেনেজুয়েলা…….

তুরস্ক একমাত্র মুসলিম দেশ যেখানে উভয়ের সাথে ব্যালেন্স করে মুসলিম স্বার্থকে অগ্রাধিকার দিয়ে মুসলমানদের সংগঠিত করে চলেছে।

পর্দার আড়ালে থেকে বিশ্বের পরাশক্তি গুলোর রাষ্ট্র ক্ষমতায় নিয়ে আশা কলকাঠি নাড়ে ইহুদিরা, এর জন্য কাড়ি কাড়ি টাকা ঢালে তারা। ক্ষমতায় আশার পরে আগেই বিক্রয় হওয়া শাসক গুলো ইহুদিদের এজেন্ডা বাস্তনায়ন করে।

★★★ ইহুদিদের যেভাবে পর্দার আড়াল থেকে বিশ্ব নিয়ন্ত্রন করছে……..
_______________________________________________
পৃথীবিতে ইহুদিদের সংখ্যা ১.৫ কোটি মত হবে অথচ বর্তমান বিশ্বের অর্থ ব্যবস্থার ৯০% তাদের নিয়ন্ত্রনে। বিশ্বের ৪ কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্যাতিত ( ইরান, সিরিয়া, উত্তর করিয়া, কিউবা) সকল ব্যাংক তাদের নিয়ন্ত্রনে।

আপনাদের মনে প্রশ্ন হবে এটা কি করে সম্ভব ?????

সম্ভব……. কারন ……..

ইহুদি রথচাইল্ড পরিবার যারা পৃথীবির সবচেয়ে ধনি পরিবার। কিন্তু তাদের সম্পদের কোন হিসাব প্রকাশ করেনা। পর্দার আড়ালে থেকে নিয়ন্ত্রন করে পৃথিবীর অর্থ ব্যবস্থা ও রাজনীতি……..

কিভাবে ???????

★ রথচাইল্ড পরিবারের ব্যবসা মূলত সুদের, তারা রাষ্ট্রকে সুদ দেয় কারন তাদের বিনিয়োগ করা টাকা জনগনের কর দ্বারা সুরক্ষিত থাকে।
★ ওয়াটারলু যুদ্ধ সম্পকে নিশ্চয় জানেন যা সংগঠিত হয়েছিল ফ্রান্স ও বৃটেনের মধ্যে। এই যুদ্ধে বৃটেন জয়লাভ করলে অর্থনৈতিক ভাবে দেওলিয়া হয়ে ব্রিটিশ রাজপরিবার।

( ঐ যুদ্ধের পেছনে উষ্কানি দিয়েছে রথচাইল্ড পরিবারের দুই ছেলে। একজন যুদ্ধের ব্যয় মেটানোর জন্য চড়া সুদে বৃটিস রাজপরিকে অর্থ দেয় অন্য ভাই দেয় ফ্রান্স কে। যুদ্ধে নেপোলিয়ন পরাজিত হলেও দু’দেশ দেওলিয়া হয় রথচাইল্ড পরিবারের কাছে)

★ আমরা মনে করি আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাংক মার্রকিন সরকারের কিন্তু না এটি ব্যাক্তি মালিকানাধীন ব্যাংক যার মালিক রথচাইল্ড পরিবার।

★ প্রতিটি দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গুলোর প্রতাক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে নিয়ন্ত্রন রথচাইল্ড পরিবারের হাতে। এদিকে বিশ্ব ব্যাংক,এডিবি,জাইকা,এইআমএফ তাদেরি পরিচালিত ব্যাংক যদিও আমরা জানি এর মালিক বিভিন্ন দেশ।

★ বর্তমানে আমেরিকা রথচাইল্ড পরিবারের কাছে দেওলিয়া। তাদের বার্ষিক জিডিপির চেয়ে বেশি সুদ পাবে রথচাইল্ড পরিবার। তার মানে আমেরিকা ইহুদিদের কাছে জিম্মি।

★ আমাদের দেশের রিজার্ভ জমা থাকে্ আমেরিকান কেন্দ্রীয় ব্যাংকে। দেশের বাৎসরিক বাজেটের বড় অংশ ঋনের সুদ বাবদ শোদ দিতে হয় যা প্রকৃত পক্ষে ঐ পরিবারের কাছে যায়।

★ বিশ্বের ক্ষমতাধর দুই জোটের সাথেই পর্দা আড়ালে ইজরাইলের ( ইহুদি) সুসম্পর্ক রয়েছে।

★ বিশ্বের বড় বড় বহুজাতিক কোম্পানি এবং প্রভাশালী মিডিয়া ইহুদিদের দখলে।
★ মধ্যপ্রাচ্যে সহ সকল মুসলিমদেশ গুলোর অশান্তির মূলে এই ইহুদিরাই দায়ী।

★★★ ইহুদিদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যঃ-
_______________________________

ইতিহাস সাক্ষি ইহুদি জাতি চরম সীমালঙ্ঘন কারী। তাদের হেদায়েত করতে মহান আল্লাহ্ তাদের কাছে অসংখ্য নবী রাসূল পাঠিয়েছে অথচ………..তারা উনাদের অনুসরন করেনি..

★ তাদের মূল এজেন্ডা জেরুজালেম দখল করা সহ সারা পৃথীবিতে একক পরাশক্তি হিসাবে আবিরভূত হওয়া।

★ ইহুদিরা খুব ভাল করে জানে জেরুজালেম দখলে নিলে মুসলমান চুপ থাকবেনা। সেই জন্য মধ্যেপ্রাচ্যের সাহসী শাসক গুলোকে এক এক করে হত্যা করছে

( ইরাক যুদ্ধের মাধ্যেমে সাদ্দামকে হত্যা,লিবিয়ায় যুদ্ধ বাধিয়ে গাদ্দাফিকে হত্যা, সেনাঅভুত্থান ঘটিয়ে মিশরে মুসরিকে হটিয়ে দালাল সিসিকে ক্ষমতায় বসানো,আফগানস্তানে ইসলাম পন্থি তালেনানদের হটিয়ে পুতুল সরকার বসিয়েছে।
তুরস্কে সেনা অভুত্থান ঘটিয়েছিল আল্লাহ্ সাহায্য করায় এরদেগানকে সরাতে পারেনি। এখন টার্গেট পাকিস্তান ও তুরস্ক)

★ ইহুদিদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে মুসলমানরা কোন ভাবেই অর্থনৈতিক এবং অস্ত্রের দিক থেকে পরাশক্তি না হতে পারে।

★ ইহুদিরা খুব সুকৌশলে শিয়া ( ইরান,ইয়েমন,সিরিয়ালেবানন) সুন্নির ( সৌদিআরব,সংযুক্ত আরব আমিরাত,বাহরাইন)দ্বন্দ লাগিয়ে ব্যস্ত রেখেছে।
সেই সুযোগে আমেরিকাকে দিয়ে ইসরাইলের রাজধানী জেরুজালেম ঘোষনা করিয়ে নিয়েছে।

★★★বর্তমানে ইহুদিদের প্রতিবন্ধকতা……
_________________________________________

★ পারমানবিক শক্তিধর পাকিস্তান সাথে তাদের জিহাদি মোনভব সেনা,তুরস্ক এবং ইসলামের, পথে লড়াইয় করা বিভিন্ন জিহাদি গ্রুপ।

★★★এবার আসুন বাংলাদেশ প্রসঙ্গে
__________________________________

বাংলালাদেশের চারেদিকে ভারত। বর্তমানে ভারত চীন এবং পাকিস্তানের শত্রু। একদিকে কাশ্মীরের মুসলমানরা ভারত থেকে বের হয়ে পাকিস্তানের সাথে যোগ দিতে চায় অন্য দিকে বাংলাদেশের উত্তর পূর্ব পাশে থাকা সেভেন সিস্টারসের রাজ্য গুলো স্বাধীনতা চাই।

বাংলাদশে যদি তাদের হুকুমের গোলাম সরকার না থাকে তাহলে সেভেন সিস্টারস তাদের হাতছাড়া হবে। স্বাভাবিক ভাবেই ভারত সেটা চাইবেনা বরং ঐ রাজ্য গুলোকে নিরাপদে রাখতে তারা বাংলাদেশ কৌশলে দখল করবে অথবা হাসিনার মত দালাকে ক্ষমতায় বসিয়ে রাখবে সারা জীবন।

আমেরিকা মিত্রদেশ ভারত আর বর্তমানে শত্রু চীন সাথে যোগ হয়েছে পাকিস্তান।

বাংলাদেশের ক্ষেত্রে ভারত চাই তাদের আজ্ঞাবহ হুকুমের গোলাম সরকার যেন বাংলাদেশে থাকে কারন আগেই বলেছি।

আমেরিকা এক্ষেত্রে ভারতের চাওয়া পাওয়ার গুরুত্ব দিবে এর কারন চীনের ও পাকিস্তানের মত পারমানবিক শক্তিধর দেশকে থামাতে হলে এই অঞ্চলে পারমানবিক শক্তিধর মিত্র দরকার।

তাই পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে ভারত আওয়ামীলীগকে আবার ক্ষমতায় নিয়ে আসবে আর আমেরিকা ও ইউরোপ জোট নির্বচন নিয়ে অবৈধ সরকারকে তেমন চাপ দিবেনা।


পেটে কৃমি আছে কি না কীভাবে বুঝবেন

এক নজরে দেখে নিন ২৯/০৪/২০১৮, আজকের টাকার রেট!


এ বিভাগের আরো খবর...

উদ্যোক্তা লোন কিভাবে পাবেন! উদ্যোক্তা লোন কিভাবে পাবেন!
জামানত ছাড়া ১০ লাখ টাকার বেশি ঋণ পাবে নতুন উদ্যোক্তা! জামানত ছাড়া ১০ লাখ টাকার বেশি ঋণ পাবে নতুন উদ্যোক্তা!
বিশ্ব রাজনীতি ও বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপট বিশ্ব রাজনীতি ও বাংলাদেশের বর্তমান পেক্ষাপট
মোটরসাইকেলের মালিকানা পরিবর্তনের নিয়মাবলি মোটরসাইকেলের মালিকানা পরিবর্তনের নিয়মাবলি
শ্বাশুড়ীর চিকিৎসার টাকা নিয়ে পলাতক জামাই। (শ্বাশুড়ির মৃত্যু) পড়ুন বিস্তারিত শ্বাশুড়ীর চিকিৎসার টাকা নিয়ে পলাতক জামাই। (শ্বাশুড়ির মৃত্যু) পড়ুন বিস্তারিত
গোপনাঙ্গের সংজ্ঞার খসড়া অনুমোদন গোপনাঙ্গের সংজ্ঞার খসড়া অনুমোদন
বাংলাদেশে শীর্ষ ১০ জন ধনীর আয়ের উৎস বাংলাদেশে শীর্ষ ১০ জন ধনীর আয়ের উৎস
ড. মুহাম্মদ ইউনূস’র ৭৫তম জন্মদিন আজ ড. মুহাম্মদ ইউনূস’র ৭৫তম জন্মদিন আজ
‘স্কুল কিংবা কলেজ পড়ুয়ারা সন্ধ্যার পর বাইরে থাকলে গ্রেফতার ‘স্কুল কিংবা কলেজ পড়ুয়ারা সন্ধ্যার পর বাইরে থাকলে গ্রেফতার
লেন্দুপ দর্জি’র ইতিহাস, জেনে নিন ? লেন্দুপ দর্জি’র ইতিহাস, জেনে নিন ?

সর্বাধিক পঠিত

গোপনে প্রতিটি মেয়ে ১০টি কাজ করে থাকে গোপনে প্রতিটি মেয়ে ১০টি কাজ করে থাকে
নারী ধূমপায়ীদের তালিকায় শীর্ষে এখন বাংলাদেশ নারী ধূমপায়ীদের তালিকায় শীর্ষে এখন বাংলাদেশ
বৈশাখী মেলা থেকে ফেরার পথে কিশোরীকে গণধর্ষণ বৈশাখী মেলা থেকে ফেরার পথে কিশোরীকে গণধর্ষণ
আগুনে পুড়লো জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ আগুনে পুড়লো জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ
নায়িকা বানানোর কথা বলে ৩ মাস ধরে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ নায়িকা বানানোর কথা বলে ৩ মাস ধরে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ
পেটের মেদ কীভাবে কমাবেন? পেটের মেদ কীভাবে কমাবেন?
যৌনাকাঙ্খা কার বেশি, পুরুষ না নারীর? যৌনাকাঙ্খা কার বেশি, পুরুষ না নারীর?
মুক্তিযোদ্ধার নাতি পুতিরাও কোটা পাবে: প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধার নাতি পুতিরাও কোটা পাবে: প্রধানমন্ত্রী
ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বিচার হবে যুদ্ধাপরাধীদের পর  : তুরিন আফরোজ ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বিচার হবে যুদ্ধাপরাধীদের পর : তুরিন আফরোজ
অনলাইন অর্ডারে ঘড়ির বদলে এলো দুটি পেঁয়াজ অনলাইন অর্ডারে ঘড়ির বদলে এলো দুটি পেঁয়াজ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
বেকারদের জন্য অনুপ্রেরনা…ফরিদপুর এর লিখন
বিশ্বের শীর্ষ ১৩ ‘ডিসিশন মেকার্স’ ক্যাটাগরিতে শেখ হাসিনা
টমেটো ধূমপানের ক্ষতি কমাবে
৩৪ বার কাটছাঁটের শিকার ‘কেয়া কুল’
ব্রেকআপের পরে ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’ হওয়া সম্ভব না
প্রেমে পড়লে শরীরে যে ছয়টি মজার পরিবর্তন ঘটে